সব কিছু
facebook channelkhulna.tv
খুলনা সোমবার , ২রা বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ , ১৫ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
খুমেক হাসপাতালের ওষুধ ক্রয় টেন্ডার সিন্ডিকেটে জিম্মি | চ্যানেল খুলনা

খুমেক হাসপাতালের ওষুধ ক্রয় টেন্ডার সিন্ডিকেটে জিম্মি

খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওষুধ ক্রয়ের টেন্ডারের সিন্ডিকেটের অভিযোগ রয়েছে। খুলনা চেম্বারের একজন নেতার নেতৃত্বে গত প্রায় ১০বছর ধরে এ সিন্ডিকেট নিয়ন্ত্রিত হচ্ছে বলে জানা গেছে। এক্ষেত্রে খুলনার একটি বিশেষ পরিবারের নাম ভাঙ্গানো হয়ে থাকে বলেও সংশ্লিষ্টরা অভিযোগ করেছেন।

গতকাল ১৬ নভেম্বর (সোমবার) হাসপাতালের পরিচালকের কক্ষে টেন্ডারের সিডিউল (দরপত্র) খোলা হয়েছে। তবে সেখানে কোন ঠিকাদারের উপস্থিতি দেখা যায়নি।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক হাসপাতালের কয়েকজন কর্মকর্তা জানিয়েছেন বিগত অনেক বছর ধরেই অনিয়ম চলছে। সব কিছু পরিকল্পিত ভাবেই হয়ে যায়।
খুমেক হাসপাতাল সুত্রে জানা গেছে, হাসপাতালের ওষুধ ক্রয়ের জন্য গত ১৭ অক্টোবর দরপত্র আহবান করে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ডাঃ মুন্সি মোঃ রেজা সেকেন্দার । ৬টি গ্রুপে ১৬ লাখ ৬৫ হাজার টাকার ওষুধ, সার্জিক্যাল যন্ত্রপাতি ও আসবাবপত্র ক্রয়ের জন্য এ দরপত্র আহবান করা হয়। গত রবিবার সিডিউল সংগ্রহের শেষ দিন পর্যন্ত ২৪ টি বিক্রি হয়েছে। গতকাল তার মধ্যে ১৮ টি জমা পড়েছে। তবে সিডিউল ক্রয় ও জমার তালিকায় খুলনার পুর্বের সেই ঠিকাদাররাই রয়েছেন। অভিযোগ রয়েছে এখানে এ সিন্ডিকেটের বাহিরে অন্য কেউ সিডিউল কিনতে আসতে পারেননা।
খুলনার সাইফুল ইসলাম ট্রেড লিং ৬ টি, জামান এন্টার প্রাইজ ৫টি, রইসা এন্টারপ্রাইজ ৬ টি, রহমান ফার্মেসী ৬ টি ও তাকবীর এন্টার প্রাইজ ১ টি সিডিউল ক্রয় করেছেন। অভিযোগ রয়েছে এ ৫ টি প্রতিষ্ঠান সিন্ডিকেটের মাধ্যমে খুমেক হাসপাতালের ওষুধসহ চিকিৎসা সরঞ্জাম ক্রয়ে বছরের পর বছর অধিপত্য বিস্তার করে আসছেন।
এবিষয়ে খুলনার সাইফুল ইসলাম ট্রেড লিং এর মালিক খুলনা চেম্বার অব কমার্সের পরিচালক সাইফুল ইসলাম বলেন, ব্যবসায়িক প্রতিপক্ষরা নানা ধরনের ষড়যন্ত্রমুলক কথা ছড়ান। টেন্ডারের সিন্ডিকেটের অভিযোগ সত্য নয়। এছাড়া টেন্ডারের কার্যক্রমে খুলনার যে বিশেষ পরিবারের নাম ভাঙ্গানোর বিষয়টি তিনি অবগত নন বলে জানান।
এবিষয়ে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ডাঃ মুন্সি মোঃ রেজা সেকেন্দারের সাথে যোগাযোগ করা হলেও সে এই বিষয় কোন মুখ খুলতে নারাজ ।
খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের হিসাব রক্ষক এস এম গোলাম কিবরিয়া বলেন ১৮টি সিডিউল জমা পড়েছে। নির্ধারিত সময়ে তা খোলা হয়েছে। সিন্ডিকেটের বিষয়ে আমাদের কিছু জানা নেই।

https://channelkhulna.tv/

বিশেষ প্রতিবেদন আরও সংবাদ

খুলনার ছয়টি আসনে দলীয় প্রার্থী হওয়ার আশায় আওয়ামীলীগে নতুন মুখ

ডুমুরিয়ার সীমান্তবর্তী সুইচ গেট মরন ফাদে পরিনত

হারিয়ে যাচ্ছে গাঁও গ্রামের মহিলাদের ঐতিহ্য জাঁতাকল

খুলনায় ঔষুধ কোম্পানির দৌরাত্ম্যে রোগীদের দুর্ভোগ চরমে

প্রভাবশালীদের প্রভাবে ডুমুরিয়ায় পানি উন্নয়ন বোর্ডের জমি দখলের মহোৎসব থামছে না

খুলনা নগরীতে থ্রি হুইলার থেকে চাঁদাবাজি বছরে প্রায় ৪কোটি টাকা

চ্যানেল খুলনা মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন  
DMCA.com Protection Status
উপদেষ্টা সম্পাদক: এস এম নুর হাসান জনি
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: শেখ মশিউর রহমান
It’s An Sister Concern of Channel Khulna Media
© ২০১৮ - ২০২২ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | চ্যানেল খুলনা.বাংলা, channelkhulna.com, channelkhulna.com.bd
যোগাযোগঃ কেডিএ এপ্রোচ রোড (টেক্সটাইল মিল মোড়), নিউ মার্কেট, খুলনা।
ঢাকা অফিসঃ ৬৬৪/এ, খিলগাও, ঢাকা-১২১৯।
ফোন- 09696-408030, 01704-408030, ই-মেইল: channelkhulnatv@gmail.com
গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তথ্য মন্ত্রণালয়ের তালিকাভুক্তির জন্য আবেদিত।