সব কিছু
facebook channelkhulna.tv
খুলনা সোমবার , ২রা বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ , ১৫ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
খুলনা বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালকের দপ্তরে বদলী বানিজ্য | চ্যানেল খুলনা

বদলিতে ৪০-৫০ হাজার টাকা লেনদেন, ১৭ দিনে ৪১ জনের বদলি ও প্রেষণ

খুলনা বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালকের দপ্তরে বদলী বানিজ্য

অনলাইন ডেস্কঃখুলনা স্বাস্থ্য বিভাগে গত ১৭ দিনে ৪১ জনের বদলির ঘটনা ঘটেেেছ। একজনকে আর্থিক লেনদেনের মাধ্যমে সুবিধা দিতে গিয়ে অন্যজনকে করা হয় বাধ্যতামূলক বদলি। খুলনা স্বাস্থ্য বিভাগের প্রশাসনিক কর্মকর্তা (চঃ দাঃ) এস এম জাহাতাব হোসেন ও স্টোনো আতোয়ার রহমান টাকার বিনিময়ে বদলি বাণিজ্যে মেতে উঠেছেন। ওই কর্মচারী সমন্বয় করে যেভাবে সুপারিশ করেছেন সেভাবেই বদলি আদেশগুলো হয়েছে বলেও একাধিক সূত্র জানায়। অল্প দিনের ব্যববধানে এ রকম বদলির ঘটনা অতীতে ঘটেনি। স্বাস্থ্যখাতে বদলি আতঙ্ক থাকায় স্বাস্থ্যসেবা ব্যাহত হচ্ছে।
এ ব্যাপারে ওই দপ্তরের প্রশাসনিক কর্মকর্তা (চঃ দাঃ) এস এম জাহাতাব হোসেন শুক্রবার বিকেলে এ প্রতিবেদককে বলেন, আর্থিক লেনদেনের মাধ্যমে কোনো একজনকে সরিয়ে আরেকজনকে বদলি করানো হয়নি। নিয়মানুযায়ী হয়েছে। একটি মহল আমার বিরুদ্ধে বদনাম রটাচ্ছে। স্বাস্থ্য পরিচালক খুলনার বাইরে রয়েছেন। তিনি আগামী মাসে মেডিকেল টিমের সাথে হজে যাবেন।
এ ব্যাপারে ওই দপ্তরের স্টেনো আতোয়ার রহমান বলেন, আমি ৩ মাস হল এখানে যোগদান করেছি। আমার কাজ ম্যাডামের (পরিচালক) ফোন আসলে তা রিসিভ করা এবং কাজের সিডিউল ঠিক রাখা। কারো কাছ থেকে টাকা নেইনি।
খুলনা স্বাস্থ্য বিভাগে বদলি আদেশে দেখা গেছে, জুন মাসে খুলনা জেনারেল হাসপাতালে প্রেষণে কর্মরত উপ-সহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার মুন্না খাতুনের প্রেষণাদেশ বাতিল করে মূল কর্মস্থল ডুমুরিয়ার সাহস ইউনিয়ন উপ-স্বাস্থ্যকেন্দ্রে, মিরেরডাঙ্গা আইডি হাসপাতালে কর্মরত উপ-সহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার নাসরিন সুলতানা হোলির প্রেষণাদেশ বাতিল করে ডুমুরিয়ার শোভনা ইউনিয়ন উপ-স্বাস্থ্যকেন্দ্রে, জেনারেল হাসপাতালে কর্মরত উপ-সহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার সুজন বিশ্বাসের প্রেষণাদেশ বাতিল করে ডুমুরিয়ার গুটুদিয়া ইউনিয়ন উপ-স্বাস্থ্যকেন্দ্রে, টুটপাড়া আরবান ডিসপেন্সারীতে কর্মরত উপ-সহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার মোঃ আলাউদ্দীন হাওলাদারের প্রেষণাদেশ বাতিল করে ডুমুরিয়ার ধামালিয়া ইউনিয়ন উপ-স্বাস্থ্যকেন্দ্রে এবং বটিয়াঘাটা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্মরত অরুপ রতন বিশ্বাসের প্রেষণাদেশ বাতিল করে ডুমুরিয়ার রঘুনাথপুর ইউনিয়ন উপ-স্বাস্থ্যকেন্দ্রে পাঠানো হয়।
গত ৯ জুলাই একটি আদেশে ১৭ জন উপ-সহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসারকে নতুন করে প্রেষণে দেওয়া হয়। এরা হলেন- ফুলতলার দক্ষিণডিহি উপ-স্বাস্থ্যকেন্দ্রের লিয়া নাছরিনকে খালিশপুর আরবান ডিসপেনসারীতে, দিঘলিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মোঃ হারুন অর রশিদকে টুটপাড়া আরবান ডিসপেনসারীতে, তেরখাদা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মোঃ আশরাফুল হককে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে, বটিয়াঘাটা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের দীপু রানাকে খুলনা জেনারেল হাসপাতালে, বটিয়াঘাটার সুরখালী ইউনিয়ন উপ-স্বাস্থ্যকেন্দ্রের মুক্তি বিশ্বাসকে খুলনাস্থ পোর্ট হেলথ অফিসে, দাকোপ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের এসএম সাইফুল ইসলামকে বটিয়াঘাটা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে, দাকোপের লাউডোব ইউনিয়ন উপ-স্বাস্থ্যকেন্দ্রের নুসরাত জাহান শারমিনকে বটিয়াঘাটার গাওঘরা উপ-স্বাস্থ্যকেন্দ্রে, বাগেরহাটের শরণখোলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মোঃ শাহাজাহান মিয়াকে খুলনা জেনারেল হাসপাতালে, মোরেলগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মোঃ মশিউর রহমানকে বাগেরহাট সদর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃ পঃ অফিসে, মোরেলগঞ্জের বহরবুনিয়া ইউনিয়ন উপ-স্বাস্থ্যকেন্দ্রের দীপ্তি রানী মিরবরকে বাগেরহাট সদর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃপঃ অফিসে, রামপাল রাজনগর ইউনিয়ন উপ-স্বাস্থ্যকেন্দ্রের সানোয়ার ইয়াসমিনকে বাগেরহাট সদর হাসপাতালে, চিতলমারী চরবানিয়ারী ইউনিয়ন উপ-স্বাস্থ্যকেন্দ্রের মল্লিক আরাফাতকে শরণখোলার তাফালবাড়ী উপ-স্বাস্থ্যকেন্দ্রে, ফকিরহাটের লখপুর ইউনিয়ন উপ-স্বাস্থ্যকেন্দ্রের শিউলি আকতারকে খুলনা জেনারেল হাসপাতালে, সাতক্ষীরার তালা সদর ইউনিয়ন উপ-স্বাস্থ্যকেন্দ্রের জোবায়দা খানমকে খুলনা বক্ষব্যাধি ক্লিনিকে, কালিগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের শারমিন আক্তার তাজকে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে এবং আশাশুনির প্রতাপনগর ইউনিয়ন উপ-স্বাস্থ্যকেন্দ্রের এনামুলকে ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রেষণে পদায়ন করা হয়।
গত ১৫ জুলাই একটি আদেশে বাগেরহাটের মোংলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের প্রধান সহকারী কাম হিসাবরক্ষক এইচ এম শামিম আহসানকে মোল্লাহাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে বদলি করা হয়। একই দিন অপর এক আদেশে নড়াইলের বাঁশগ্রাম ইউনিয়ন উপ-সহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার মোঃ সাঈদ আরেফিনকে মেহেরপুরের যাদুখালী ইউনিয়ন উপ-স্বাস্থ্যকেন্দ্রে এবং যাদুখালীর মোঃ হযরত আলীকে নড়াইল সদরের বাঁশগ্রাম কেন্দ্রে বদলি করা হয়। ১৫ জুলাই আরও একটি আদেশে ছয়জনকে বিভিন্ন স্থানে বদলি করা হয়। এরা হলেন- ঝিনাইদহ সদর উপজেলা স্বাস্থ্য অফিসের ক্যাশিয়ার মোঃ হিটলার হোসেনকে ঝিনাইদহ ম্যাটস-এ, ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালের হেড সহকারী কাম একাউন্টেন্ট মোঃ আব্দুস সালামের প্রেষণাদেশ বাতিল, রূপসা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল টেকনোলজিস্ট (ডেন্টাল) সোহেল রানাকে খুলনা জেনারেল হাসপাতাল, বটিয়াঘাটা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল টেকনোলজিস্ট (ডেন্টাল) মোঃ কামরুল হককে রূপসা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে, খুলনা জেনারেল হাসপাতালের মেডিকেল টেকনোলজিস্ট মুন্সী সফিকুল ইসলামকে বটিয়াঘাটা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এবং যশোরের মণিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ক্যাশিয়ার মোঃ জাকির হোসেনকে চৌগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে বদলি করা হয়। ১৬ জুলাই নড়াইল সিভিল সার্জনের কার্যালয়ের ক্যাশিয়ার জাহান আরা খানমকে নড়াইল সদর হাসপাতাল এবং নড়াইল সদর হাসপাতালের হিসাবরক্ষক মোঃ শামীমুল পারভেজকে নড়াইল সিভিল সার্জন অফিসে বদলি করা হয়। একই দিন আরও দু’টি বদলি আদেশে বটিয়াঘাটা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের উপ-সহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার দিপু রানাকে দাকোপের লাউডোব ইউনিয়ন সেন্টারে এবং লাউডোবের নুসরাত জাহান শারমীনকে বটিয়াঘাটা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে বদলি করা হয়। ১৭ জুলাই খুলনা বক্ষব্যাধি হাসপাতালের হিসাবরক্ষক মোঃ শাহিন মোল্লাকে খুলনা জেনারেল হাসপাতালে, জেনারেল হাসপাতালের হেড সহকারী কাম একাউন্টেন্ট মোঃ নূর আলমকে শহীদ শেখ আবু নাসের বিশেষায়িত হাসপাতালে, মেডিকেল সাব ডিপোর প্রধান সহকারী গাজী তরিকুল ইসলামকে খুলনা বক্ষব্যাধি হাসপাতালে এবং ফুলতলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের প্রধান সহকারী সেলিনা খাতুনকে খুলনা মেডিকেল সাব ডিপোতে বদলি করা হয়।
খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ডেন্টাল বিভাগের মেডিকেল টেকনোলজিস্ট মুন্সী শফিকুল ইসলামকে কথিত অভিযোগ দিয়ে গত বছর ১৫ জুলাই রূপসা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে বদলি করা হয়। সেখান থেকে আবার গত ২৬ মে খুমেক হাসপাতালে আনার পর মাত্র দু’দিনের মাথায় ২৮ মে তাকে বদলি করা হয় খুলনা জেনারেল হাসপাতালে। দু’মাস হওয়ার আগেই আবারও গত ১৭ জুলাই তাকে খুলনা জেনারেল হাসপাতাল থেকে বদলি করা হয় বটিয়াঘাটা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে।
একটি নির্ভরযোগ্য সূত্র মতে, ওই দপ্তরের প্রশাসনিক কর্মকর্তা (চঃ দাঃ) এস এম জাহাতাব হোসেন ও স্টোনো আতোয়ার রহমান টাকার বিনিময়ে বদলি প্রত্যাশিদের সুবিধাজনক স্থানে বদলি করাচ্ছেন। অনেক সময় বদলির আদেশ ব্যক্তিদের গোপনে ডেকে এনে বদলি ঠেকানো বা সুবিধাজনক স্থানে বদলির আদেশ করে দেওয়ার জন্য ৪০-৫০ হাজার টাকা নিচ্ছেন।
এ ব্যাপারে বিভাগীয় পরিচালক (স্বাস্থ্য) ডাঃ রাশেদা সুলতানাকে শুক্রবার বিকেলে ফোন দিলেও তিনি রিসিভ করেননি। প্রশাসনিক কর্মকর্তা (চঃ দাঃ) এস এম জাহাতাব হোসেন বলেন, ম্যাডাম দেশের বাইরে অবস্থান করছেন।

https://channelkhulna.tv/

স্বাস্থ আরও সংবাদ

যে পানীয়তেই মিলবে ব্রণের সমস্যার সমাধান

পাইকগাছা ও কয়রার মানুষ কে উন্নত চিকিৎসা সেবা দিচ্ছে ড্রিম ফোর হাসপাতাল

১৯০ পদের বিপরীতে শূন্য ৯০ পদ; নেই পরিচ্ছন্নকর্মী ও টেকনিশিয়ান

খুলনায় ডেঙ্গু আক্রান্ত আরো দুই নারীর মৃত্যু

খুলনায় ডেঙ্গুতে একজনের মৃত্যু, হাসপাতালে ভর্তি ৪৩৬

খুলনায় ডেঙ্গুতে ১৭ বছর বয়সি কিশোরীর মৃত্যু

চ্যানেল খুলনা মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন  
DMCA.com Protection Status
উপদেষ্টা সম্পাদক: এস এম নুর হাসান জনি
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: শেখ মশিউর রহমান
It’s An Sister Concern of Channel Khulna Media
© ২০১৮ - ২০২২ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | চ্যানেল খুলনা.বাংলা, channelkhulna.com, channelkhulna.com.bd
যোগাযোগঃ কেডিএ এপ্রোচ রোড (টেক্সটাইল মিল মোড়), নিউ মার্কেট, খুলনা।
ঢাকা অফিসঃ ৬৬৪/এ, খিলগাও, ঢাকা-১২১৯।
ফোন- 09696-408030, 01704-408030, ই-মেইল: channelkhulnatv@gmail.com
গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তথ্য মন্ত্রণালয়ের তালিকাভুক্তির জন্য আবেদিত।