সব কিছু
facebook channelkhulna.tv
খুলনা মঙ্গলবার , ৪ঠা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ , ১৮ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
ডুমুরিয়ায় সূর্যের দেখা নেই, গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি খেটে খাওয়া মানুষের দুর্ভোগ | চ্যানেল খুলনা

ডুমুরিয়ায় সূর্যের দেখা নেই, গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি খেটে খাওয়া মানুষের দুর্ভোগ

শেখ মাহতাব হোসেন:: খুলনার ডুমুরিয়া উপজেলাসহ গোটা জেলায় ১০দিন ধরে সূর্যের দেখা নেই। বৃহস্পতিবার (১৮ জানুয়ারি) সকাল থেকে গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি দিনে এবং রাতে এ অঞ্চলে হালকা বাতাসের সঙ্গে ঘনকুয়াশা থাকায় বেড়েছে শীতের তীব্রতা। ঘন কুয়াশা আর মেঘে ঢেকে রয়েছে আকাশ। দিনে এবং রাতে বৃষ্টির মতো ঝড় ঝড় করে কুয়াশা পড়ছে। বিশেষ করে দুপুরের পর থেকে বাতাসের গতি বাড়ছে। ফলে ঠান্ডা আরও বাড়ছে। হিমেল বাতাস আর কনকনে ঠান্ডার কারণে ১০দিনেও কাজে যেতে না পারায় চরম দুর্ভোগে রয়েছেন শ্রমজীবী ও সাধারণ মানুষজন।

ক্ষেত খামারে, মাঠে ঘাটে লোকজনের উপস্থিতি কমে গেছে। প্রয়োজন ছাড়া কেউ বাড়ির বাইরে বের হচ্ছে না। বাড়িতে কিংবা বাড়ির বাইরে, রাস্তার ধারে, গ্রাম মহল্লায় আগুন তাপিয়ে শীত নিবারনের চেষ্টা করছেন মহিলা পুরুষ। গরম কাপড়ের দোকানে গুলোতে শীতের গরম কাপড় কিনতে স্বল্প আয়ের মানুষের ভীড় বেড়েছে।

গত ৮ জানুয়ারী হতে শৈত্য প্রবাহ শুরু হওয়ার পর থেকে অদ্যাবধি পর্যন্ত সূর্যের দেখা মেলেনি ডুমুরিয়ার আকাশে। মানুষ জনের পাশাপাশি পশু পাখিরাও জবুথবু হয়ে পড়েছে। উপজেলা ৫০ শয্যা বিশিষ্ট স্বাস্থ্য কমপেক্সে শীত জনিত রোগীর সংখ্যা বাড়ছে। কনকনে ঠান্ডায় সবচেয়ে বেশি দুর্ভোগে পড়েছে শ্রমজীবী মানুষজন। কাজে যেতে না পাড়ায় অনেকে অর্ধাহারে দিন কাটাচ্ছে।

ডুমুরিয়া ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের জেলে পাড়া গ্রামের বাসিন্দা নদীর পাশাপাশি বিভিন্ন নদীতে মাছ ধরে জীবিকা নির্বাহ করা কানাই লাল বিশ্বাস বলেন, একদিন মাছ ধরতে না গেলে পেটে ভাত যায় না। সেখানে ঠান্ডার কারনে গত ১০দিন ধরে কাজে যেতে পারছি না। সাইফুল ইসলাম জানান বর্তমানে মাঠে আলু, ভুট্টা, মরিচ, সরিষা, বেগুন, বাধাকপিসহ বিভিন্ন সবজি ক্ষেত রয়েছে। তাপমাত্রা কমে যাওয়ায় ৪দিন পর পর ছত্রাক নাশক স্প্রে করার পরামর্শ দিচ্ছি। রাতের বেলা বীজতলা পলিথিন দিয়ে ঢেকে রাখতে বলা হচ্ছে অথবা সকালে বীজতলার পাতায় জমানো শিশির বিন্দু ঝেড়ে ফেলতে বলা হচ্ছে। জেলার অবস্থান হওয়ায় এমনিতেই বর্তমান এলাকায় শীতের দাপট বেশি।

ডুমুরিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার শেখ নূরুল আলম বলেন এ যাবত ১৪টি ইউনিয়ন ও ৫হাজার ৭২০টি কম্বল বিতরণ করা হয়েছে। শীতার্তদের জন্য সরকারিভাবে বরাদ্দের জন্য নতুন করে আরও চাহিদা পাঠানো হয়েছে। বিতরণকৃত কম্বল প্রয়োজনের তুলনায় কম।

https://channelkhulna.tv/

খুলনা আরও সংবাদ

কেইউজে’র নব-নির্বাচিত নেতৃবৃন্দের সালাহউদ্দিন জুয়েল এমপি’র সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ

খুবির প্রধান প্রকৌশলী (ভারপ্রাপ্ত) এস এম মনিরুজ্জামানের পিতার ইন্তেকালে উপাচার্যের গভীর শোক

জোড়াগেট পশুর হাটে অভিযানে ১ লাখ টাকার জালনোট সহ গ্রেপ্তার ১

পাইকগাছায় শেষ মূহুর্তে কোরবানীর পশুর হাট জমে উঠেছে

খুলনা ক্রাইম রিপোর্টার্স এসোসিয়েশনের সদস্য সচিব শিশিরের সুস্থ্যতা কামনা

পাইকগাছায় আবাসনের দরিদ্র পরিবারের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার বিতরণ

চ্যানেল খুলনা মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন  
DMCA.com Protection Status
উপদেষ্টা সম্পাদক: এস এম নুর হাসান জনি
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: শেখ মশিউর রহমান
It’s An Sister Concern of Channel Khulna Media
© ২০১৮ - ২০২২ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | চ্যানেল খুলনা.বাংলা, channelkhulna.com, channelkhulna.com.bd
যোগাযোগঃ কেডিএ এপ্রোচ রোড (টেক্সটাইল মিল মোড়), নিউ মার্কেট, খুলনা।
ফোন- 09696-408030, 01704-408030, ই-মেইল: channelkhulnatv@gmail.com
গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তথ্য মন্ত্রণালয়ের তালিকাভুক্তির জন্য আবেদিত।