সব কিছু
facebook channelkhulna.tv
খুলনা বৃহস্পতিবার , ১৪ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ , ২৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
১৫ টাকার টেপ ৪০ টাকা! | চ্যানেল খুলনা

১৫ টাকার টেপ ৪০ টাকা!

এম.পলাশ শরীফ :: নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসের দাম দুই থেকে পাঁচ টাকা বাড়লেই সাধারণ মানুষের নাভিশ^াস ওঠে। কিন্ত ১৫ টাকার একটি কস টেপ ৪০ টাকা হলে কোথায় যাবেন তারা। এরকম তুঘলকি কান্ড ঘটেছে মোংলা শহরের মিয়াপাড়া এলাকায়। সেখানে মারুফ ষ্টোর নামে একটি দোকানে এইভাবে বিক্রি হচ্ছে টেপ। শুধু টেপ নয় চাল, ডাল, তেল, সাবান এমনকি তরকারি বিক্রির ক্ষেত্রেও কোন নিয়মই মানছেন না ওই দোকানের ব্যবসায়ীরা।

মঙ্গলবার (১৬ নভেম্বর) দুপুরে ওই দোকানে একটি কস টেপ কিনতে গিয়ে রীতিমত বিপাকে পড়েন রানু বেগম নামে এক নারী। ভুক্তভোগি ওই নারী বলেন, একটি কসটেপ কিনতে গিয়েছিলাম। কিন্তু দোকানি আবুল কালাম সেটি ৪০ টাকা দাম রাখায় আমি হতাশায় পড়লাম। পরে একই টেপ আমি অন্য দোকান থেকে ১৫ টাকায় কিনে এনেছি।

পৌর শহরের ২ নম্বর ওয়ার্ডের মিয়াপাড়া এলাকার মারুফ ষ্টোর নামে এই দোকানের বিরুদ্ধে এলাকাবাসীর রয়েছে বিস্তর অভিযোগ। নাম প্রকাশ না করার শর্তে ভুক্তভোগিরা বলেন, চাল ডালসহ প্রতিটা জিনিসেরই দাম স্বাভাবিকের চেয়ে আট থেকে ১০ টাকা বেশি রাখেন ওই দোকানের মালিক আবুল কালাম ও তার ছেলে আব্দুর রহিম। তারা আরও বলেন, বেশিরভাগ সময় বাকিতে পণ্য ক্রয় করায় অসহায় হয়ে এর প্রতিবাদ করতে পারেন না তারা। এই দোকানে নিয়ম বর্হিভূতভাবে জীবন রক্ষাকারী ওষুধও বিক্রি করেন তারা। মানহীন কিছু ওষুধ বিক্রি করেও মানুষকে জিম্মি করে অতিরিক্ত টাকা হাতিয়ে নেয় বলেও অভিযোগ করেন এলাকাবাসী।

এলাকার মসজিদ কমিটির সাধারণ সম্পাদক মোঃ ইউসুফ আলী বলেন, মানুষকে ঠকিয়ে পণ্য বিক্রির নামে অতিরিক্ত টাকা আদায়ের ঘটনা সত্য। দীর্ঘদিন তাদের কর্মকান্ডে এলাকার মানুষ এক প্রকার জিম্মি হয়ে পড়েছে। এর বিরুদ্ধে প্রশাসনের হস্তক্ষেপও চান তিনি।

মোংলা উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) কমলেশ মজুমদার বলেন, মারুফ ষ্টোর নামে একটি দোকান পণ্য বিক্রির নামে স্বেচ্চাচারিতা করছে, এমন অভিযোগ মৌখিকভাবে ভুক্তভোগিরা আমাকে জানিয়েছেন। দ্রæত ভোক্তা আইনে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিব বলেও জানান তিনি।

এদিকে ১৫ টাকার কস টেপ ৪০ টাকা কেন জানতে চাইলে ওই দোকানের মালিক আবুল কালামের ছেলে আব্দুর রহিম বলেন, ভুল হয়েছে।

ভোক্তা অধিকার আইন নিয়ে দীর্ঘদিন আন্দোলন করে আসা উপজেলার সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান ও সাংবাদিক নুর আলম শেখ বলেন, বাজার মনিটরিং কমিটি অভিযান চালায় না বলেই এ ধরণের অসাধু ব্যবসায়ীরা মানুষকে ঠকিয়ে পার পেয়ে যাচ্ছে। তাদের বিরুদ্ধে এখনই ব্যবস্থা নেওয়া দাবি জানান তিনি।

https://channelkhulna.tv/

অর্থনীতি আরও সংবাদ

ইভ্যালি থেকে পদত্যাগ করল মানিকের নেতৃত্বাধীন পরিচালনা বোর্ড

২০ মিলিয়ন ডলার ঋণ সহায়তা দেবে এডিবি

৭ থেকে ২৮ অক্টোবর পর্যন্ত ইলিশ ধরা নিষিদ্ধ

ভরিতে ১২৮৩ টাকা কমলো সোনার দাম

রাশিয়া থেকে রুপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের মালামাল নিয়ে মোংলা বন্দরে ‘ইসানিয়া’

বিশ্ববাজারে কমল জ্বালানি তেলের দাম

চ্যানেল খুলনা মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন  
DMCA.com Protection Status
উপদেষ্টা সম্পাদক: এস এম নুর হাসান জনি
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: শেখ মশিউর রহমান
It’s An Sister Concern of Channel Khulna Media
© ২০১৮ - ২০২২ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | চ্যানেল খুলনা.বাংলা, channelkhulna.com, channelkhulna.com.bd
যোগাযোগঃ কেডিএ এপ্রোচ রোড (টেক্সটাইল মিল মোড়), নিউ মার্কেট, খুলনা।
ঢাকা অফিসঃ ৬৬৪/এ, খিলগাও, ঢাকা-১২১৯।
ফোন- 09696-408030, 01704-408030, ই-মেইল: channelkhulnatv@gmail.com
গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তথ্য মন্ত্রণালয়ের তালিকাভুক্তির জন্য আবেদিত।